33 C
Dhaka
মে ১৫, ২০২১

নিরাপদ আশ্রয় ও রিজিক পেতে দোয়া করুন

communitynews.info

ধর্ম ডেস্ক: করোনাভাইরাসের কারণে বাংলাদেশসহ বিশ্বের অনেক দেশ এখন এক কঠিন সময় পার করছে। এই কঠিন বিপদ থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য আমাদের আল্লাহর কাছে বেশি বেশি দোয়া করতে হবে।

রাসুলুল্লাহ (সা.) যখনই কোনো কঠিন সমস্যা বা বিপদের সম্মুখীন হতেন, তখনই আল্লাহর কাছে একান্তভাবে প্রার্থনা করতেন। বিপদ-আপদ, রিজিকসহ নানান বিষয়ে অনেক দোয়া পবিত্র কোরআন ও হাদিসে বর্ণিত হয়েছে। মাগফেরাতের দশকে আল্লাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনার পাশাপাশি নেককার লোকদের মতো হালাল ও উত্তম রিজিক এবং আশ্রয় পাওয়া দোয়া করবে মুমিন রোজাদার। এ দশকে বান্দাকে আল্লাহ ক্ষমা করবেন এবং তার সব চাহিদা পূরণ করে দেবেন।

কুরআন-সুন্নাহর এ দোয়াগুলোও বেশি বেশি পড়-
– اللَّهُمَّ زِدْنَا وَلَا تَنْقُصْنَا، وَأَكْرِمْنَا وَلَا تُهِنَّا، وَأَعْطِنَا وَلَا تَحْرِمْنَا، وَآثِرْنَا وَلَا تُؤْثِرْ عَلَيْنَا، وَأرْضِنَا وَارْضَ عَنَّا
উচ্চারণ : আল্লাহুম্মা যিদনা ওয়া লা তানকুসনা ওয়া আকরিমনা ওয়া লা তুহিন্না ওয়া আত্বিনা ওয়া লাতাহরিমনা ওয়া আছিরনা ওয়া লা তুছির আলাইনা ওয়া আরদিনা ওয়ারদা আন্না।’
অর্থ : ‘হে আল্লাহ! আমাদেরকে অধিক পরিমাণে দাও, আমাদেরকে কম দিও না। আমাদেরকে সম্মানিত করো, অপমানিত কর না। আমাদেরকে নিয়ামাত দান কর, বঞ্চিত কর না। অন্যদের ওপর আমাদের পছন্দ কর, আমাদের ওপর অন্যদের পছন্দ কর না। আমাদের প্রতি তুমি সন্তুষ্ট থাক, আর আমাদেরকে খুশি করে দাও!’

তাই অনুগত বান্দাদের মতো উত্তম রিজিক ও নিরাপদ আশ্রয় পেতে আজকের দিনে এ ছোট্ট দোয়াটি বেশি বেশি পড়া-
اَللَّهُمَّ ارْزُقْنِيْ فِيْهِ طَاعَةَ الْخَاشِعِيْنَ، وَاشْرَحْ فِيْهِ صَدْرِيْ بِإِنَابَةِ الْمُخْبِتِيْنَ، بِأَمَانِكَ يَا أَمَانَ الْخَائِفِيْن
উচ্চারণ : ‘আল্লাহুম্মারঝুক্বনি ফিহি ত্বাআতাল খাশিইন; ওয়াশরাহ ফিহি সাদরি বিইনাবাতিল মুখবিতিন; বি-আমানিকা ইয়া আমানাল খায়িফিন।’

অর্থ : ‘হে আল্লাহ! এদিনে আমাকে তোমার বিনয়ী বান্দাদের মতো জীবিকা দান কর। তোমার আশ্রয় ও হেফাজতের ওসিলায় আমার অন্তরকে প্রশস্ত করে তোমার ভয়ে ভিরু ও বিনয়ী বান্দাদের অন্তরে পরিণত করে দাও। হে আল্লাহ! তুমি ভিরুদের আশ্রয়দাতা।’

– رَّبِّ أَعُوذُ بِكَ مِنْ هَمَزَاتِ الشَّيَاطِينِ – وَأَعُوذُ بِكَ رَبِّ أَن يَحْضُرُونِ
উচ্চারণ : ‘রাব্বি আউজুবিকা মিন হামাযাতিশ শায়াত্বিন – ওয়া আউজুবিকা রাব্বি আইঁইয়াহদুরুন।’
হে আমার পালনকর্তা! আমি শয়তানের প্ররোচনা থেকে আপনার আশ্রয় প্রার্থনা করি, আর হে আমার পালনকর্তা! আমার কাছে তাদের উপস্থিতি থেকে আপনার আশ্রয় প্রার্থনা করি।’

– رَبِّ فَلَا تَجْعَلْنِي فِي الْقَوْمِ الظَّالِمِينَ
উচ্চারণ : ‘রাব্বি ফালা তাঝআলনি ফিল ক্বাওমিজ জ্বালিমিন।’
অর্থ : ‘হে আমার পালনকর্তা! তবে আপনি আমাকে গোনাহগার সম্প্রদায়ের অন্তর্ভূক্ত করবেন না।’ (সুরা মুমিনুন : আয়াত ৯৪)

– رَبَّنَا آمَنَّا فَاغْفِرْ لَنَا وَارْحَمْنَا وَأَنتَ خَيْرُ الرَّاحِمِينَ
উচ্চারণ : ‘রাব্বানা আমান্না ফাগফিরলানা ওয়ারহামনা ওয়া আংতা খাইরুর রাহিমিন।’
অর্থ : ‘হে আমাদের পালনকর্তা! আমরা বিশ্বাস স্থাপন করেছি। অতএব তুমি আমাদেরকে ক্ষমা কর ও আমাদের প্রতি রহম কর। তুমি তো দয়ালুদের মধ্যে শ্রেষ্ঠ দয়ালু।’ (সুরা মুমিনুন : আয়াত ১০৯)

– رَّبِّ اغْفِرْ وَارْحَمْ وَأَنتَ خَيْرُ الرَّاحِمِينَ
উচ্চারণ : ‘রাব্বিগফির ওয়ারহাম ওয়া আংতা খাইরুর রাহিমিন।’
অর্থ : ‘হে আমার পালনকর্তা! ক্ষমা করুন ও রহম করুন। রহমকারীদের মধ্যে আপনি শ্রেষ্ট রহমকারী।’ (সুরা মুমিনুন : আয়াত ১১৮)

– رَبَّنَا غَلَبَتْ عَلَيْنَا شِقْوَتُنَا وَكُنَّا قَوْمًا ضَالِّينَ – رَبَّنَا أَخْرِجْنَا مِنْهَا فَإِنْ عُدْنَا فَإِنَّا ظَالِمُونَ
উচ্চারণ : ‘রাব্বানা গালাবাত আলাইনা শিক্বওয়াতুনা ওয়া কুন্না ক্বাওমাং দাল্লিন। রাব্বানা আখরিঝনা মিনহা ফাইন্না উদনা ফাইন্না জ্বালিমুন।’
অর্থ : ‘হে আমাদের পালনকর্তা! আমরা দূর্ভাগ্যের হাতে পরাভূত ছিলাম এবং আমরা ছিলাম বিভ্রান্ত জাতি। হে আমাদের পালনকর্তা! এ থেকে আমাদেরকে উদ্ধার কর; আমরা যদি পুনরায় তা করি, তবে আমরা গোনাহগার হব।’ (সুরা মুমিনুন : আয়াত ১০৬-১০৭)

রোজাদারের মনে রাখা জরুরি-
আল্লাহ তাআলা মন্দ কাজ সংঘটিত হওয়ার সব বিষয়গুলোকে হালকা করেছেন রোজাদারের ইবাদত-বন্দেগি করার জন্য। জান্নাতের দরজা খুলে দিয়েছেন জান্নাতি পরিবেশ লাভের জন্য। আবার জাহান্নামের দরজা ও শয়তানকে বেড়ি পড়ানোর মাধ্যমে অপরাধ প্রবণতা কমিয়ে দিয়েছেন।

সুতরাং রমজানের দ্বিতীয় দশকে আল্লাহ ক্ষমা লাভে অস্রু বিসর্জনের বিকল্প নেই। আল্লাহর কাছে ঈমানদার রোজাদারের চোখের পানির মূল্য অনেক। ঈমানদার যদি আল্লাহর ক্ষমা লাভে অস্রু বিসর্জন দিতেই পারে তবে সে পানি মাটিতে পরার আগেই আল্লাহ তাকে ক্ষমা করে দেবেন।আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে তার রহমতের ওসিলায় দুনিয়ার যাবতীয় অন্যায় ও খারাপ কাজ থেকে বিরত থেকে ক্ষমা লাভের তাওফিক দান করুন। আমিন।

কমিউনিটিনিউজ/ এমএএইচ

আরও সংবাদ

১২ নির্দেশনায় মসজিদেই হবে ঈদের নামাজ

কমিউনিটি

রাজশাহীতে ফিতরা টাকা নির্ধারণ

কমিউনিটি

রিযিক সম্পর্কে ইসলাম কি বলে

কমিউনিটি

আল্লাহ বান্দার সহজ করতে চান

কমিউনিটি

রোজাদারের আনন্দ ইফতারে

কমিউনিটি

জাহান্নাম থেকে মুক্তির বিশেষ মুহূর্ত

কমিউনিটি