21 C
Dhaka
জানুয়ারি ৩০, ২০২৩

রাজশাহীর দুই পৌরসভায় নৌকার মনোনয়ন পেতে দৌড়ঝাঁপ শুরু

চারঘাট প্রতিনিধি, রাজশাহীঃ রাজশাহীর দুই পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে মেয়র পদে মনোনয়ন নিতে ঢাকায় ছুটছেন ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা। কে পাবেন তাই নিয়ে চায়ের দোকানসহ পাড়ার মহল্লা চলছে আলাপ আলোচনা।

উল্লেখ, পঞ্চম ধাপে রাজশাহীর চারঘাট ও দুর্গাপুরসহ মোট ৩১টি পৌরসভার নির্বাচন আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি। এ নির্বাচনকে ঘিরে তদবিরে এখন রাজধানী ঢাকায় অবস্থান করছেন দুই উপজেলা আ’লীগের হাফ ডজনেরও বেশি নেতা। মনোনয়ন প্রত্যাশীরা সবাই ঢাকায় গিয়ে দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে তদবিরে ব্যস্ত রয়েছেন। স্থানীয় একাধিক নেতা এই তথ্য জানিয়েছেন।

জানা গেছে, ঐ দুই পৌরসভায় বিগত দিনে চারঘাটে বিএনপি ও দুর্গাপুরে উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন মেয়র নির্বাচিত হলেও এবার পৌরতে নেতৃত্বে আসতে চান আ,লীগের এক ডজন নেতা। তবে মনোনয়ন দৌড়ে শীর্ষে আছেন দুই থেকে তিনজন।

চুড়ান্ত মনোনয়ন যিনিই পাবেন তাকে বিজয়ী করার অঙ্গীকার করেছেন সকলে। তবে চূড়ান্ত প্রার্থী মনোনয়নে অধিকতর সতর্কতার আহ্বান জানিয়েছেন দলীয় নেতাকর্মীরা। তা নাহলে এ নির্বাচনে ভরাডুবির শঙ্কা তাদের।

ভোটারদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, দুই পৌরসভায় আ’লীগের যিনি মনোনয়ন পাবেন, তারই মেয়র নির্বাচিত হবার সম্ভবনা বেশি। দলীয় প্রধান যাকে নৌকার টিকিট দিবেন তার পক্ষেই নেতাকর্মীরা কাজ করবেন। তবে এবারের নির্বাচনে মেয়র পদে আ’লীগের মধ্য থেকে যাদের নাম শোনা যাচ্ছে তারা হলেন,

চারঘাট পৌরসভাঃ
সাবেক এমপি রাহানুল হকের সহধর্মিনী ও সাবেক মেয়র মোছাঃ নার্গিস খাতুন, পৌর আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক একরামুল হক, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মামুন ও উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তুষার।

এছাড়াও দুর্গাপুর পৌরসভায় রয়েছেন যারাঃ
বর্তমান পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন, আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সাবেক সদস্য আমিনুল ইসলাম টুলু, দুর্গাপুর পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল মান্নান ফিরোজ, সাধারণ সম্পাদক আজাহার আলী, হাসানুজ্জামান সান্টু, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি সাহাদত হোসেন, সাবেক জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য আব্দুর রাজ্জাক, সাবেক উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন, আওয়ামীলীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম ও সুকুমার রায়। তবে লিস্টে তাদের নাম পাঠানো হলেও নির্বাচনী মাঠে সক্রিয়ভাবে রয়েছেন মাত্র কয়েক জন প্রার্থী।

সম্ভাব্য এসব প্রার্থীর ব্যানার, পোস্টার, ফেস্টুনে ছেয়ে গেছে গোটা পৌরসভা এলাকা। প্রতিদিনই প্রার্থীদের সমর্থনে চলছে মোটরসাইকেল শোডাউন, মিটিং, শোভাযাত্রা। তবে সম্ভাব্য এই প্রার্থীরা তফসিল ঘোষণার পরপরই দলীয় মনোনয়ন পেতে ঢাকায় কেন্দ্রীয় নেতাদের কাছে তদবিরে ব্যস্ত রয়েছেন।

কিন্তু এখানকার নির্বাচনে মনোনয়নের বিষয়টি সম্পূর্ণ নির্ভর করে আওয়ামী লীগের হাইকমান্ডের উপর। ফলে কেন্দ্রীয় নেতাদের সু-দৃষ্টিতে দুই পৌরসভার হাফ ডজনের বেশি নেতা এখন ঢাকায় অবস্থান করছেন।

এদিকে, এই দুই পৌরবাসীর দাবি পৌর-এলাকার নাগরিকদের সকল সুযোগ-সুবিধা বৃদ্ধি ও উন্নয়নের বিষয়ে গুরুত্ব দিয়ে যেন দলীয় প্রার্থীর মনোনয়ন দেওয়া হয়।

 

কমিউনিটি নিউজ/এমএইচ

আরও সংবাদ

সাগরে লঘুচাপের পূর্বাভাস দিল দপ্তর

কমিউনিটি নিউজ

বৃহস্পতিবারের পোল্ট্রির ডিম মুরগি ও বাচ্চার পাইকারি দাম

কমিউনিটি নিউজ

বুধবারের পোল্ট্রির ডিম মুরগি ও বাচ্চার পাইকারি দাম

কমিউনিটি নিউজ

মঙ্গলবারের পোল্ট্রির ডিম মুরগি ও বাচ্চার পাইকারি দাম

কমিউনিটি নিউজ

আগামী ৭ দিনের আবহাওয়ার পূর্বাভাস

কমিউনিটি নিউজ

৪ জেলায় শৈত্য প্রবাহ কাল

কমিউনিটি নিউজ