30 C
Dhaka
আগস্ট ২, ২০২১

প্রি-পেইড মিটার বন্ধে আন্দোলনে নামছেন রাজশাহীবাসী

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী: রাজশাহী অঞ্চলে প্রি পেইড বৈদ্যুতিক মিটার বসানোর কাজ শুরু করেছে নর্দার্ন ইলেকট্রিসিটি সাপ্লাই কোম্পানি লিমিটেড (নেসকো)। তবে, এসব মিটার চান না সাধারণ জনগণ। ইতোমধ্যে মিটার স্থাপন বন্ধে মানববন্ধন ও সমাবেশ কর্মসূচি পালন করেছে সামাজিক সংগঠন রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদ।

চলতি মাসের ১২ তারিখ প্রি পেইড মিটার স্থাপনের কার্যক্রম বন্ধে ১৫ দিনের আল্টিমেটাম দেয় সংগঠনটি। আল্টিমেটাম দেওয়ার পরও কর্তৃপক্ষের কোন ভ্রুক্ষেপ নেই, চলছে কার্যক্রম। ফলে মাস শেষে ৩০ অথবা ৩১ তারিখ জনগণকে সাথে নিয়ে মিটার স্থাপন বন্ধে আন্দোলনে নামার হুমকি দিয়েছেন রাজশাহী রক্ষা সংগ্রাম পরিষদের সাধারণ সম্পাদক জামাত খান।

জামাত খান বলেন, প্রি পেইড মিটার স্থাপন বন্ধ না হলে যে কোন মুহূর্তে দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। এই দায় নেসকোকে নিতে হবে। বারবার নিষেধ করা স্বত্তেও মিটার স্থাপন করছেন তারা। এসব মিটার নিয়ে সাধারণ মানুষের মাঝে অসন্তোষ বাড়াছেই। গ্রাহক ভোগান্তি বাড়াতে প্রি-পেইড মিটার চালুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

আরোও পড়ুন: রামেক হাসপাতাল থেকে নবজাতক চুরি

এসব মিটারের বেশ কয়েকটি অসুবিধা তুলে ধরে সংগঠনটির সদস্য ও স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, প্রতি ১ হাজার টাকা রিচার্জে ৩০০ টাকা উধাও। এছাড়া ছুটির দিন, জরুরি প্রয়োজনে রিচার্জের ব্যবস্থা নেই। নির্ধারিত সময় পার হলেই বন্ধ করা হবে বিদুৎ সাপ্লাই। অভিযোগ জানাতে দিতে হবে ১৬০০ টাকা। দু-দিন থাকবেনা বিদুৎ। আসলে জনগণের ভালো চাইলে এমন অতিরিক্ত কর্মকাণ্ড করতেন না বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেন জনগণ।

গতকাল শনিবার (২৩ জানুয়ারি ২০২১) দুপুরে নগরীর কুমারপাড়া এলাকায় ঠিকাদারের লোকজন বাসাবাড়িতে প্রি-পেইড মিটার লাগানোর কাজ শুরু করে কর্তৃপক্ষ। এ সময় বাঁধার মুখে যে ক’টি বাড়িতে প্রি-পেইড মিটার লাগানো হয়েছিল সেগুলোও খুলে নিতে বাধ্য করা হয়। একইসাথে ঠিকাদারের কর্মীদের এলাকা ছাড়তে বাধ্য করেন স্থানীয়রা।

প্রি পেইড মিটারের নিশ্চয়তা নেই এমনটি তুলে ধরে নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার বলেন, প্রি-পেইড মিটারে যদি আমার রাত ১২টায় টাকা শেষ হয়ে যায়, তাহলে কি আমি অন্ধকারে থাকব? মোবাইলে যেমন কখন কয়টাকা কাটে তার ঠিক নাই, সেরকমই প্রি-পেইড মিটারে কখন কি হবে তার ঠিক নাই। আমাদের এই নিশ্চয়তা কে দেবে? আগে আমাদের বোঝাতে হবে, নিশ্চয়তা দিতে হবে, তারপর মিটার লাগাতে হবে।

আরোও পড়ুন: করোনার প্রথম টিকা পাবেন একজন নার্স

জানতে চাইলে নেসকোর রাজশাহীর তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী শিরিন ইয়াসমিন কমিউনিটি নিউজকে বলেন, একটা নতুন কিছু এলে সেক্ষেত্রে বিরোধিতা হতেই পারে। প্রি পেইড মিটারে ভোগান্তি নেই, এতে জনগণের সুবিধা হবে। আমরা একটা গণশুনানি বা সেমিনার আয়োজন করে মানুষকে বোঝাব। আগামীকালও একটা গণশুনানি আছে। আমি বেশি জানিনা আপনি প্রকল্প প্রধানের কাছে ফোন দিয়ে জানতে পারেন।

এসব মিটার স্থাপনের কাজ করছেন ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান ইপিসি। এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাজশাহী অঞ্চলের প্রকল্প ব্যবস্থাপক আশিকুল হক কমিউনিটি নিউজকে জানান, শহরে প্রায় আড়াই হাজার বাড়িতে প্রি-পেইড মিটার বাসনো হয়েছে। কুমারপাড়া এলাকায় এসে তারা বাধার সম্মুখিন হলেন। বিষয়টি তিনি কর্তৃপক্ষকে জানাবেন। নেসকোর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সমাধান করবেন।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৮ অক্টোবর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ রাজশাহী, নাটোর ও সিরাজগঞ্জ জেলায় ৫ লাখ স্মার্ট প্রি-পেইড মিটার স্থাপনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। ২৮ অক্টোবর এই মিটারের প্রথম বিরোধিতা করে মানববন্ধন ও সমাবেশ কর্মসূচি পালন করে সামাজিক সংগঠন সংগঠনটি প্রি-পেইড মিটার বাতিল করার দাবি জানিয়ে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদকে একটি স্মারকলিপিও দেওয়া হয়।

 

কমিউনিটি নিউজ/এমএইচ

আরও সংবাদ

দেশে মৃতের সংখ্যা ২১ হাজার ছাড়াল

কমিউনিটি নিউজ

ভাড়া পাচ্ছে না ‘গরিবের অ্যাম্বুলেন্স’

কমিউনিটি নিউজ

মাছ কেটে ৩০ বছর সংসার চালান তুজিন

কমিউনিটি নিউজ

ট্রাক মাইক্রোবাসের সংঘর্ষে চালক নিহত

কমিউনিটি নিউজ

২৪ ঘণ্টায় করোনায় সর্বোচ্চ প্রাণ হারালেন ২৫৮ জন

কমিউনিটি নিউজ

দেশে সর্বোচ্চ ২৪৭ জনের মৃত্যু

কমিউনিটি নিউজ