33 C
Dhaka
আগস্ট ১২, ২০২২

‘কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনে সরকারের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত’

নিজস্ব প্রতিবেদক: রাজশাহীতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপনে সরকারের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত বলে জানিয়েছেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকার। আজ বৃহস্পতিবার (১৭ ডিসেম্বর, ২০২০) বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে জেলা পরিষদ সভা কক্ষে আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

চেয়ারম্যান বলেন, ২০১৮ সালের জানুয়ারিতে মাসিক সভায়  সার্ভে ইন্সটিউট এর জায়গায় মার্কেট নিমার্ণের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। পরে ২০১৯ সালের জানুয়ারিতে মাসিক সভায় একই জায়গায় ‘রাজশাহী কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার’নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। ২০১৯ সালের চলতি বছর ডিসেম্বরে ফের সবার সম্মতিক্রমে মার্কেট নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় । সভায় সদর আসনের সাংসদ ফজলে হোসেন বাদশা উপস্থিত ছিলেন।

তিনি বলেন, চলতি বছর ১৫  ডিসেম্বর বিশেষ সভায় বীর মুক্তিযোদ্ধা ও রাজশাহী বাসীর দাবিতে জেলা পলিষদের মালিকানাধীন  “ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড সার্ভে ইন্সটিটিউট” এর পুরাতন ভবনের ভুমিতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার নির্মাণের সিদ্ধন্ত গৃহীত হয়। এছাড়া সভায় শহীদ মিনারটি জেলা  পরিষদের সার্বিক ব্যবস্থাপনা ও  নিজস্ব অর্থায়নে সবাই নির্মাণের মত দেন। শহীদ মিনার নির্মাণের লক্ষে প্রয়োজনীয় অর্থ বরাদ্দ চেয় স্থানীয় সরকার বিভাগে শ্রীঘই পত্র প্রেরণ করা হবে এই মর্মে সিদ্ধান্ত গ্রহন করা হয়।

দলে অনুপ্রবেশকারীর ব্যাপারে এক সাংবাদিকের প্রশ্নের জবাবে মোহাম্মদ আলী সরকার বলেন,  নূর ইসলাম ঠান্ডুর সাথে নিউ গভ: ডিগ্রী কলেজে ছাত্রলীগ করেছি। তৃণমূল থেকে উঠে এসেছি। যারাই আমাকে দলে অনুপ্রবেশকারী বলবে তারাই অনুপ্রবেশকারী বলে জানান তিনি।

আয়োজিত সাংবাদিক  সম্মেলনে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আলী সরকারের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের সদস্য মোসা: নারগীস বিবি,  মো: গোলাম মোস্তফা , আসাদুজ্জামান (মাসুদ), আবুল ফজল প্রাং, শিউলি রাণী সাহা, জয় জয়ন্তি সরকারসহ জেলা পরিষদের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত,  বুধবার ( ১৬ ডিসেম্বর,২০২০) বিজয় দিবস উপলক্ষে রাজশাহীর প্রাণকেন্দ্র সোনাদিঘি এলাকায় ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড সার্ভে ইনস্টিটিউটের পরিত্যক্ত জায়গায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়। সার্ভে ইনস্টিটিউটের এই জায়গাটি জেলা পরিষদের। সার্ভে ইনস্টিটিউট অন্যত্র স্থানান্তরের পর পরিত্যক্ত ভবন নিয়ে জায়গাটি পড়ে আছে। সেখানে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার নির্মাণে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের একটি প্রকল্পে সাড়ে ১৬ কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

কমিউনিটি / এমবি

আরও সংবাদ

সিদ্ধ ডিম রেখে কতক্ষণ পর খাওয়া নিরাপদ?

কমিউনিটি নিউজ

বিশ্ববাজারে ফের কমলো গমের দাম

কমিউনিটি নিউজ

ডাকাতিয়ায় বাল্কহেড-ট্রলার সংঘর্ষ, নিহত ৫

কমিউনিটি নিউজ

পটুয়াখালীতে নামাজ পড়ে ঘুমিয়ে অজ্ঞান ১৫ জন

কমিউনিটি নিউজ

মেয়ের চাচাকে বরের ভাই তালই সম্বোধন করায় সংঘর্ষ, আহত ২৫

কমিউনিটি নিউজ

প্রবাসী ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর

কমিউনিটি নিউজ