28 C
Dhaka
আগস্ট ১৩, ২০২২

লকডাউনে জরুরি চলাচলে ‘মুভমেন্ট পাস’ চালু

নিজস্ব প্রতিবেদক, কমিউনিটিনিউজ: বাংলাদেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি রোধে কাল থেকেই শুরু হতে যাচ্ছে এক সপ্তাহের ‘কঠোর লকডাউন।  এই সময়ে বাইরে বের হতে হলে অনলাইন থেকে ‘মুভমেন্ট পাসবা চলাচলের অনুমতি সংগ্রহ করতে হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ। মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল ২০২১) রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে ‘মুভমেন্ট পাস’ অ্যাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন।

তিনি  বলেন,  ১৪ এপ্রিল থেকে শুরু হতে যাওয়া ‘কঠোর লকডাউন’ ঢাকায় যাদের বাইরে যাওয়া প্রয়োজন হবে, তাদের এই অ্যাপের মাধ্যমে ‘মুভমেন্ট পাস’ নিতে হবে।মানুষের ‘অনিয়ন্ত্রিত ও অপ্রয়োজনীয়’ চলাচল কমাতে এবং জরুরি বিশেষ প্রয়োজনে যাতায়াতের সুবিধায় বাংলাদেশ পুলিশ এ সুবিধ চালু করছে ।

প্রতিবার যাতায়াতের জন্য পাস নিতে হবে, একটি পাস একবার ব্যবহার করা যাবে। যাওয়া এবং আসার জন্য দুটি আলাদা পাসের আবেদন করতে হবে। এতে সাংবাদিকরাও মুভমেন্ট পাস প্রদর্শনের আওতামুক্ত থাকবেন বলে জানান পুলিশের মহাপরিদর্শক।

অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, “প্রয়োজনে বের হবেন, ঘরের বাইরে গেলে মাস্ক পরতে হবে এবং বাইরে থেকে ঘরে ফিরে স্যানিটাইজার দিয়ে পরিষ্কার হবেন। আপনার মাধ্যমে যেন আপনার প্রিয়জন করোনায় সংক্রমিত না হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। এছাড়া রাস্তায় জটলা না পাকানো, বাইরে আড্ডা না দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

আইজিপি বলেন, “আশা করি মিথ্যা অজুহাত দিয়ে এই সংকটকালীন সময়ে কেউ অযথা পাসের আবেদন করবেন না। মুভমেন্ট পাস নিতে আমরা কাউকে বাধ্য করছি না । এটাকে সাপোর্ট হিসেবে দেখা হচ্ছে।”

অনুষ্ঠানে অতিরিক্ত মহাপুলিশ পরিদর্শক (প্রশাসন) মঈনুর রহমান চৌধুরী, ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ শফিকুল ইসলামসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পুলিশ সদর দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার মুভমেন্ট পাসের ওয়েবসাইট চালুর প্রথম ঘণ্টায় আবেদন জমা পড়ে‌ছে প্রায় সোয়া লাখের মতো। আর প্র‌তি মি‌নিটে প্রায় ১৫ হাজার আবেদন জমা হচ্ছে।

লকডাউনে জরুরি চলাচলে ‘মুভমেন্ট পাস’ দেবে পুলিশ

পুলিশ সদর দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে, মঙ্গলবার মুভমেন্ট পাসের ওয়েবসাইট চালুর প্রথম ঘণ্টায় আবেদন জমা পড়ে‌ছে প্রায় সোয়া লাখের মতো। আর প্র‌তি মি‌নিটে প্রায় ১৫ হাজার আবেদন জমা হচ্ছে।

দুপুরে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স অডিটেরিয়ামে মুভমেন্ট পাস (MOVEMENT PASS) ওয়েবসাইটটির উদ্বোধন করেন পুলিশের মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদ।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, যে কেউ এ ওয়েবসাইটে ঢুকে কয়েকটি তথ্য দিয়ে সহজেই এ পাস সংগ্রহ করতে পারবেন।

যেভাবে আবেদন করা যাবে

https://movementpass.police.gov.bd/ ওয়েবসাইটে ঢুকে পাসের জন্য আবেদন করতে হবে।

শুরুতে একটি সক্রিয় মোবাইল ফোন নম্বর দিতে হবে। আবেদনকারী কোথা থেকে কোথায় যাবেন, তা জানতে চাওয়া হবে। সেইসব তথ্য ধাপে ধাপে দিতে হবে। এরপর আবেদনকারীর একটি ছবি আপলোড করে ফর্মটি জমা দিতে হবে।

জমা দেওয়া ফর্মে আবেদনকারী দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে মুভমেন্ট পাস ইস্যু করা হবে। ওয়েবসাইট থেকেই পাসটি ডাউনলোড করা যাবে। লকডাউনে চলাচলের সময় কর্তব্যরত পুলিশ সদস্যদের পাস দেখাতে হবে।

মুভমেন্ট পাসের জন্য যেসব তথ্য লাগবে

আবেদনকারী কোন থানা এলাকা থেকে কোন থানা এলাকায় যাবেন তা উল্লেখ করতে হবে, আবেদনকারীর নাম, লিঙ্গ, বয়স, ভ্রমণের কারণ, পাস ব্যবহারের তারিখ ও সময়, পাসের মেয়াদ শেষের তারিখ ও সময়, পরিচয়পত্র, ছবি।

পরিচয়পত্র হিসেবে জাতীয় পরিচয়পত্র, ড্রাইভিং লাইসেন্স, পাসপোর্ট, জন্মনিবন্ধন বা স্টুডেন্ট আইডি কার্ড ব্যবহার করা যাবে।

যেসব ক্ষেত্রে লাগবে মুভমেন্ট পাস

মুদি মালামাল কেনাকাটা, কাঁচাবাজার, ওষুধ কেনা, চিকিৎসা, চাকরি, কৃষিকাজ, পণ্য পরিবহন, পণ্য সরবরাহ, ত্রাণ বিতরণ, পাইকারি/খুচরা ক্রয়, পর্যটন, মৃতদেহ সৎকার, ব্যবসাসহ অন্যান্য জরুরি কারণে বাইরে যাওয়ার জন্য পাসের আবেদন করা যাবে।এছাড়াও  ঢাকার বাইরে যাতায়াতে মুভমেন্ট পাস লাগবে। একটি মোবাইল নম্বর দিয়ে একাধিক পাস নেওয়া যাবে না।

এর আগে সোমবার সরকারি যে নির্দেশনা জারি করা হয়েছে তাতে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া ঘরের বাইরে যাওয়ার ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

লকডাউন কার্যকর করতে সরকারের ১৩ দফা বিধি নিষেধে বলা হয়েছে, ‘অতি জরুরি প্রয়োজন ব্যতীত (ঔষধ ও নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি কেনা, চিকিৎসা সেবা, মরদেহ দাফন বা সৎকার এবং টিকা কার্ড নিয়ে টিকার জন্য যাওয়া) কোনোভাবেই বাড়ির বাইরে বের হওয়া যাবে না।

কমিউনিটিনিউজ/ এমএএইচ

কঠোর লকডাউনের আগের দিন কেনাকাটার হিড়িক

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী: আগামী ১৪ এপ্রিল বাংলা নববর্ষের ও পবিত্র রমজান মাসের প্রথম দিন। একই সাথে শুরু হবে সরকারের ঘোষিত দ্বিতীয় দফা লকডাউনের প্রথম দিন। কঠোর এই লকডাউনের ঘোষণার আগেই রাজশাহীর বিভিন্ন সড়ক, বিপণী বিতান ও বাজারগুলোতে নেমেছে কেনাকাটার হিড়িক। এছাড়াও সরকারী ও বেসরকারী ব্যংকের সামনে গ্রাহকদের লম্বা সারি চোখে পড়ার মত। এই উপলক্ষকে ঘিরে মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল ২০২১) উপচে পড়া ভিড়ে কারো যেন পা ফেলার ঠাঁয় ছিল না বিভিন্ন মার্কেটসহ প্রধান সড়কগুলোতে।

আজ সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, নগরীর সাহেব বাজার জিরো পয়েন্ট, আরডিএ মার্কেট, গণকপাড়া, নিউ মার্কেট, কোর্ট বাজার, হড়গ্রাম বাজারসহ সব ধরনের দোকান শপিংমল ও শো-রুমগুলোতে ক্রেতাদের অতিরিক্ত সমাগম দেখতে পাওয়া গেছে।

আরো পড়ৃুন:

এদিন অন্যান্য দিনের তুলনায় পণ্য অন্তত তিনগুণ বেশি বিক্রি হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। এতে বেশ খুশি তারা।  তবে লকডাউনের সিদ্ধান্তে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন রিকশা-অটোরিকশা চালক, সাধারণ ব্যবসায়ীসহ বিভিন্ন শ্রেণীপেশার মানুষ।

চৈত্র মাসের গরমের মধ্যেও বিপণী বিতানগুলোতে ঠেলাঠেলি করে কেনাকাটা করছেন মানুষ। অধিকাংশ ক্রেতার মাঝে মাস্ক ব্যবহারের প্রবণতা থাকলেও মানছেন না সামাজিক দূরত্ব। টিসিবির পণ্য বিক্রির পয়েন্টগুলোতে ছিল ক্রেতাদের লম্বা সারি। ক্রেতাদের ধারণা, সরকারীভাবে জারিকৃত সাতদিনের কঠোর লকডউন বৃদ্ধি পেয়ে ঈদুল ফিতর পর্যন্ত বহাল থাকতে পারে। তাই তারা ঈদের কেনাকেটাও কিছুটা সেরে ফেলছেন। সেজন্য করোনার উচ্চ সংক্রমণের ঝুঁকির পরও আগাম কেনাকাটায় বাজারমুখী হয়েছেন তারা। তবে এসব কেনাকাটায় জনসাধারণের মুখে মাস্ক পরিধান করতে দেখা গেলেও তেমনভাবে সামাজিক দূরত্ব মানতে দেখা যায়নি। এছাড়াও ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান গুলোতে হ্যান্ড স্যানিটাইজিং স্প্রে রাখার নির্দেশনা প্রদান করা হলেও সেগুলোরও কোন বাস্তবিক রুপ দেখা মেলেনি।

আরো পড়ুন

রাজশাহীতে হিটশকে ক্ষতি ১০ শতাংশ ধান

তবে পুলিশকে মার্কেটের গলিগুলোতে হেঁটে হেঁটে হ্যান্ড মাইক দিয়ে মুখে মাস্ক ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে বারবার সতর্ক করতে দেখা গেছে। অন্যদিকে, স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়ে ক্রেতাদের সাথে কথা বলা হলে তারা কেউ মুচকি হেসে বিষয়টি এড়িয়ে যাচ্ছে আবার কেউ কেউ বলছে প্রয়োজনের তাগিদেই বাজারে এসেছে বলে জানান।

রাজশাহীর নিউ মার্কেটে বাজার করতে আসা শামীম রেজার সাথে হলে তিনি বলেন, “সরকার এক সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা করলেও সাতদিন পর সবকিছু খুলে দেয়া হবে না। স্কুল-কলেজ খোলার ব্যাপারে যেমনটা বারবার ছুটি বাড়ানো হয়েছে, এবার লকডাউনও ঠিক তেমনি বাড়ানো হবে। তাই করোনার স্বাস্থ্য ঝুঁকি থাকলেও ৩৫ কিলোমিটার দূর থেকে শহরে কেনাকাটা করতে বাজারে এসেছি। কাছে টাকা না থাকলেও বৃদ্ধ মা-বাবা ও পরিবারের জন্য ঈদের বাজার করতে এক বন্ধুর কাছ থেকে টাকা ধার নিয়েই অগ্রিম শপিং সম্পন্ন করেছি।”

বিক্রেতারা জানান, মঙ্গলবার ঈদের বাজারের চেয়ে কোনো অংশে কম হয়নি বেচাকেনা। ক্রেতাদের অতিরিক্ত উপস্থিতির ফলে এদিন তারা ঠিকমতো খাবার খাওয়ারই সময় পাননি। লাভও হয়েছে অনেক বেশি। তবে লকডাউনে সবকিছু বন্ধ করতে হলে তারা চরম আর্থিক শঙ্কটে পড়ে সংসার নিয়ে হুমকির মুখে পড়বেন বলেও আশঙ্কা। তাই রাজশাহীর ব্যবসায়ীরা মঙ্গলবার শেষবারের মতো সরকারের কাছে লকডাউন প্রত্যাহারের দাবি জানান।

রাজশাহী ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ফরিদ মামুদ হাসান বলেন, সাধারণ ব্যবসায়ীদের দুঃখ-কষ্ট ও অর্থনৈতিক মন্দায় পথে বসতে যাওয়ায় তাদের সংগঠন মার্কেট খোলা রাখতে সরকারের বিভিন্ন দপ্তরে স্মারকলিপি দেয়। কিন্ত ইতিবাচক কোনো সাড়া না দিয়ে উল্টো কঠোর লকডাউনের ঘোষণা দেয়া হয়েছে। নিম্ন আয়ের দোকানদার ও খেটে খাওয়া মানুষের কান্না দেখে নিজেকে সামলানো যাচ্ছে না।

এদিকে লকডাউনের খবরে রাজশাহী রাস্তাঘাটে ছিল মানুষের উল্লেখযোগ্য উপস্থিতি। শহর ছেড়ে অনেকে গ্রামে গেছেন পরিবারের সঙ্গে ঈদ করার জন্য। অতিরিক্ত ভাড়া দিয়ে হলেও শহর ছেড়েছেন অনেকেই। এদিন রিকশা-অটোরিকশা চালকরা অন্যদিনের চেয়ে কয়েকগুণ বেশি উপার্জন করেছেন বলে রিকশা গ্যারেজ সূত্রে জানা গেছে। তবে বুধবার থেকে কঠোরভাবে লকডাউন কার্যকরে সব প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রশাসন।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) আবু আসলাম  বলেন, “মানুষের মধ্যে কেনাকাটার জন্য ভিড় ছিল এটা সঠিক।স্বাস্থ্যবিধি মানতে জনসাধারণকে উদ্বুদ্ধ করতে মাঠে ছিল প্রশাসন। তবে লকডাউন শতভাগ কার্যকর করতে সার্বিক প্রস্ততি নেয়া হয়েছে।”

এ ব্যাপারে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক বলেন, “লকডাউন কার্যকরে আরএমপির সকল থানায় প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। মুভমেন্ট পাস ছাড়া কেউ বাইরে বের হতে পারবে না। তবে সাংবাদিক ও জরুরী সংবাদপত্রের সঙ্গে সম্পৃক্ত হকার-কর্মচারিদের ক্ষেত্রে কঠোরতা শিথিলযোগ্য।

ব্যাবসায়ীরা জানান, কঠোর লকডাউন ৭ দিনের ঘোষণা দিলেও আদৌ কবে তা শেষ হবে সেই অনিশ্চয়তা থেকেই সকল শ্রেণী পেশার মানুষ ঈদের কেনাকাটা সেরে নিচ্ছে।

এদিকে মানুষকে ঘরে রাখতে সরকার কঠোর অবস্থানে থাকবে এমন নির্দেশনাও ইতোমধ্যে জারি করা হয়েছে।

কমিউনিটিনিউজ/ এমএএইচ

আরও সংবাদ

দেশে কতদিনের জ্বালানি আছে তা জানালো বিপিসি

কমিউনিটি নিউজ

সুইস ব্যাংকের কাছে নির্দিষ্ট কোনও তথ্য চায়নি বাংলাদেশ: রাষ্ট্রদূত

কমিউনিটি নিউজ

শীঘ্রই বাড়ছে গ্যাস ও বিদ্যুতের দাম

কমিউনিটি নিউজ

রাজধানীর হাতিরঝিল চক্রাকার বাসের ভাড়া বাড়লো

কমিউনিটি নিউজ

সাপাহারে বঙ্গমাতার জন্মবার্ষিকী উদযাপন

কমিউনিটি নিউজ

চলে গেলেন ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী

কমিউনিটি নিউজ