27 C
Dhaka
অক্টোবর ১৬, ২০২১

৪৮ বছর পর প্রকাশ পাচ্ছে ‘মুজিববাদ’

সাহিত্য ডেস্ক, কমিউনিটি নিউজ:

মুজিববর্ষে প্রয়াত খ্যাতিমান লেখক খোন্দকার মোহাম্মদ ইলিয়াসের লেখা ‘মুজিববাদ’ বইটি প্রকাশ পাচ্ছে। প্রায় ৪৮ বছর পর শ্রাবণ প্রকাশনী আবার প্রকাশ করবে বইটি। আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি বইটির নতুন সংস্করণ প্রকাশ হবে বলে জানান প্রকাশনীর প্রকাশক রবীন আহসান।

বইটিতে প্রায় ৬০০ পৃষ্ঠা রয়েছে। যার দাম ধরা হয়েছে ৮০০ টাকা। অগ্রিম গ্রাহক হলে অর্ধেক দামে ৪০০ টাকায় পাওয়া যাবে বইটি। আগামী ১৫ ফেব্রয়ারি পর্যন্ত অগ্রিম গ্রাহক হওয়া যাবে।

মুজিববাদ বইটির কথা

বিভিন্ন জাতির বিকাশ ধারায় এমন কতকগুলো বৈশিষ্ট্য থাকে যা এক জাতি থেকে অপর জাতির সম্পূর্ণ আলাদা। জাতি পরিচয়ের মূল সূত্র অর্থনৈতিক ক্রিয়াকাণ্ড ও উৎপাদনের সাথে শ্রম সম্পর্কের ঐক্য ও সংহতি। এ প্রশ্নে শাসিত ও শোষিত জাতির ভাগ্য বিপর্যয়ের ঘটনায় তেমন বিরোধীয় উপাদান পাওয়া যায় না। পাওয়া যায় না স্বশাসিত ও শোষণমুক্ত জাতির সমগ্র মেহনতী শ্রেণির সাথে উৎপাদন যন্ত্রে শ্রম সম্পর্ক, মালিকানা এবং সরকারি ক্ষমতায় নিজেদের আধিপত্য প্রতিষ্ঠার প্রশ্নে।

তেমনি বাঙালি জাতির বিকাশে এমন কতগুলো ঐতিহাসিক পরিস্থিতি তার বাস্তব জীবনকে প্রভাবিত করেছে, যার নজির অন্যান্য জাতির বেলায় সাধারণত দেখা যায় না। জাতীয় সংগ্রামে বাঙালি মানসিকতা বিকাশে সমৃদ্ধ উপাদান সন্নিবেশিত হয়েছে। অনেক জাতির জীবনেও তার বিকাশ ঘটে। কিন্তু একটি নির্দিষ্ট ভৌগোলিক ভূখণ্ডে বাসকারী সুপ্রাচীন ও সুসভ্য মানবগোষ্ঠীর আর্য নামক অপর একটি আধাসভ্য কিন্তু সুপ্রাচীন মানবগোষ্ঠীর অস্ত্রের বশ্যতা মেনে নিতে অস্বীকৃতি জ্ঞাপন এবং সুদীর্ঘকাল তাদের বিরুদ্ধে সংগ্রামে লিপ্ত থেকে এই অঞ্চলের জনগোষ্ঠীর যে অভিজ্ঞতা সঞ্চয়, বাঙালির জীবনে মূল্যবান চারিত্রিক বৈশিষ্ট্য সৃষ্টির মূলে তার প্রভাব অনন্য সাধারণ।

মুজিববাদ এর মূল্য দর্শন- বাংলার মাটি, বাঙালি-মানস এবং বাঙালির চারিত্রিক ভৌগৌলিক ও পারিপার্শ্বিক বৈশিষ্ট্য ও স্বাতন্ত্রের সমাবেশ ঘটিয়ে সেই সঙ্ঘবদ্ধ ও সুসংহত শক্তিকে জাতি গঠনের কাজে নিজস্ব পথে নিয়োগ ও প্রয়োগ। সেই সাথে মুজিব-চিন্তার শপথ- বাংলাদেশে শ্রমিক, কৃষক বুদ্ধিজীবী ও সকল মেহনতী মানুষের জন্যে একটি গণতান্ত্রিক, শোষণহীন, সুখী ও সমৃদ্ধশালী সমাজ কায়েম করা। সোনার বাংলা এরই পরিচয়।

মার্কসবাদ-লেনিনবাদ সাম্যবাদের দর্শন, সমাজতন্ত্র তার অন্তর্বর্তী পন্থা। মুজিববাদ সমাজতন্ত্রের দর্শন, বাংলাদেশের বাস্তব অবস্থা ও ঐতিহাসিক পরিস্থিতি বিবেচনায় ধর্মনিরপেক্ষতাবাদ, জাতীয়তাবাদ ও গণতন্ত্র তার অন্তর্বর্তী। কাজেই বাংলাদেশের মার্কসবাদ ও লেনিনবাদের সাথে মুজিববাদের অবস্থান দ্বন্দ্বমূলক নয়, রয়েছে সম্পূরকভাবে কিছু অতি উৎসাহী তরুণ রাজনৈতিক কর্মী ভাবাবেগে মুজিববাদ এবং মার্কসবাদ-লেনিনবাদের পক্ষে কিংবা বিপক্ষে অতিরঞ্জিত কথাবার্তা ও স্লোগান উত্থাপন করে থাকে।

বাংলাদেশে সাম্রাজ্যবাদ ও নয়া-উপনিবেশবাদের যে জিওপলিটিক্স, তার ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণের পর এই সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়া যায়, বিশ্ব পুঁজিবাদের নেতৃত্বে এ দেশে, এমনকী সমগ্র ভারত-বাংলাদেশের-পাকিস্তান উপমহাদেশের শান্তি, সমাজতন্ত্র প্রতিরোধ করতে তারা বিপুল কূটনৈতিক, রাজনৈতিক ও সামরিক শক্তি নিয়োগ করেছে।

বর্তমান বিশ্বের এই অঞ্চলে যে মার্কিন খুনি গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ বিশেষভাবে তৎপর উপমহাদেশের প্রগতিশীল নেতৃবৃন্দের বিবৃতি ও বক্তৃতা থেকে সুস্পষ্ট ইঙ্গিত মেলে। সেরূপ অবস্থায় যারা মুজিববাদ বিরোধী কিংবা মার্কসবাদ ও লেনিনবাদবিরোধী তাদের নিয়ে সতর্ক দৃষ্টি রাখা শান্তি, গণতন্ত্র ও সমাজতান্ত্রিক শক্তিবর্গের সবিশেষ জরুরি।

এবিআর/কমিউনিটি নিউজ

আরও সংবাদ

মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি নিয়ে দাড়িয়ে রাজশাহীর ‘স্মৃতি অম্লান’

কমিউনিটি নিউজ

চলনবিলের নদী বাঁচলে প্রান্তজন বাঁচবে

কমিউনিটি নিউজ

বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার পাচ্ছেন ১০ জন

কমিউনিটি নিউজ

মা

কমিউনিটি নিউজ

এডিবি থেকে প্রাণ ডেইরি ১ কোটি ডলার ঋণ পাচ্ছে

কমিউনিটি নিউজ