33 C
Dhaka
মে ১৫, ২০২১

রাজশাহী-বগুড়ায় যুক্ত হচ্ছে ৫ টি হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী: করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় রাজশাহী ও বগুড়ার করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিদের চিকিৎসায় সেবায় নতুন করে যুক্ত হচ্ছে নতুন ৫ টি হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা। নর্থ-ওয়েস্ট পাওয়ার জেনারেশন কোম্পানি লিমিটেডে (এনডব্লিউপিজিসিএল) করোনা আক্রান্ত ব্যক্তিদের চিকিৎসা সেবা প্রদানের জন্যে ৫ টি হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা প্রদান করেছেন।

সোমবার (১২ এপ্রিল) কোম্পানির প্রতিনিধিরা রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনারের কাছে এই হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা হস্তান্তর করে। এই ৫ টি হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলার মধ্যে ৩ টি রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতাল ও ২ টি বগুড়ায় হস্তান্তর করা হবে বলে জানানো হয়েছে।

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই হস্তান্তর অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিদ্যুৎ বিভাগ বিজ¦াখস মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. হাবিবুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. মো হুমায়ুন কবীর ও এনডব্লিউপিজিসিএল এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা প্রকৌশলী এ এম খোরশেদুল আলম।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সচিব মো. হাবিবুর রহমান বলেন, করোনাকালীন বিদ্যুৎ বিভাগ অন্যান্য জরুরি সেবার মতোই সাধারণ মানুষকে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সেবা দিয়ে যাচ্ছেন। এই সেবার পাশাপাশি করোনা রোগীদের চিকিৎসায় দায়বদ্ধতা থেকে সহযোগিতা করার চেষ্টাও করছেন। এরই ধারাবাহিকতায় করোনা রোগীদের চিকিৎসায় এই ৫ টি হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা প্রদান করা হলো। আগামীতেও এমন সহযোগিতা অব্যহত থাকবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. মো হুমায়ুন কবীর হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা প্রদান করে করোনা রোগীদের চিকিৎসা সেবায় এগিয়ে আসায় এনডব্লিউপিজিসিএল কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। এছাড়া আগামীতেও এমন সহযোগিতা কামনা করেন।

হস্তান্তর অনুষ্ঠানে রাজশাহী জেলা প্রশাসক মো. আব্দুল জলিল ও এনডব্লিউপিজিসিএল সিরাজগঞ্জ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী শফিকুল ইসলামসহ রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, রাজশাহী বিভাগের রামেক হাসপাতালে ১৪ টি, শহিদ জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৪ টি, জয়পুরহাটে ১ টি, বগুড়ায় ২ টি, সিরাজগঞ্জে ১ টি, পাবনায় ১ টিসহ চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১ টি হাই ফ্লো ন্যাজাল ক্যানোলা রয়েছে।

কমিউনিটিনিউজ/ এমএএইচ

সাত দিন বন্ধ থাকবে ব্যাংক

কোনো প্রকার জামানত ছাড়াই এক কোটি টাকা

কমিউনিটিনিউজ ডেস্ক: ‘কঠোর লকডাউনে’ দেশের সব বাণিজ্যিক ব্যাংক বন্ধ থাকবে। এ সময় ব্যাংক শাখার পাশাপাশি আর্থিক সেবা দেওয়া ব্যাংকের সব উপ-শাখা, বুথ ব্যাংকিং, এজেন্ট ব্যাংকিং সেবাও বন্ধ থাকবে। তবে সার্বক্ষণিক খোলা থাকবে এটিএম, ইন্টারনেট ব্যাংকিংসহ অনলাইন সব সেবা। সোমবার (১২ এপ্রিল ২০২১) বিকেলে  এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মারাত্মকভাবে বেড়ে যাওয়ায় আগামী ১৪ এপ্রিল (বুধবার) থেকে ‘কঠোর লকডাউন’ ঘোষণা করেছে সরকার। ১৪ এপ্রিল ভোর ৬টা থেকে ২১ এপ্রিল মধ্যরাত পর্যন্ত এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর থাকবে।

লকডাউনের সময়কালে গণপরিবহন, সব সরকারি, আধা সরকারি, স্বায়ত্বশাসিত, বেসরকারি অফিসের পাশাপাশি বন্ধ থাকবে ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠান। তবে এসব প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নিজ নিজ কর্মস্থলে অবস্থান করতে হবে।

বাণিজ্যিক ব্যাংকের লেনদেন বন্ধ থাকলেও আমদানি-রফতানির সুবিধার্থে শুধুমাত্র বন্দর এলাকার ব্যাংকের শাখাগুলো খোলা থাকবে। পাশাপাশি রপ্তানিকারকদের প্রয়োজনে বৈদেশিক মুদ্রায় লেনদেন করা শাখা (এডি) নির্দিষ্ট দিনের জন্য খোলা রাখা যাবে।

এদিকে গার্মেন্টস, শিল্প-কারখানা কাঁচাবাজারসহ জরুরি সেবা দেয়া প্রতিষ্ঠানগুলো খোলা থাকবে। এছাড়া বিমান, সমুদ্র, নৌ ও স্থল বন্দর এবং তৎসংশ্লিষ্ট অফিসগুলো এ নিষেধাজ্ঞার আওতামুক্ত থাকবে। সংক্রমণ রোধে ঘোষিত সময়ে শ্রমিকদের নিজ নিজ প্রতিষ্ঠান থেকে নিজস্ব পরিবহন ব্যবস্থাপনায় আনা-নেয়া নিশ্চিত করতে হবে বলে  প্রজ্ঞাপন জারি করেছেন সরকার।

কমিউনিটিনিউজ/ এমএএইচ

আরও সংবাদ

স্বপ্নের ঠিকানা পাচ্ছে চারঘাটের আরও ১০ পরিবার

কমিউনিটি

আড়াই’শ পরিবারের পাশে বাঘা উপজেলা চেয়ারম্যান লাভলু

কমিউনিটি

করোনায় জুয়ায় ঝুঁকে পড়ছে শিশুরা

কমিউনিটি

মুলার যত পুষ্টি ও উপকারিতা

কমিউনিটি

যেভাবে বানাবেন পোড়া আমের শরবত

কমিউনিটি

করোনায় রাজশাহী জেলা আ.লীগ সভাপতি মেরাজ মোল্লার ইন্তেকাল

কমিউনিটি