33 C
Dhaka
আগস্ট ১২, ২০২২

রাস্তায় নিজের প্রচার করছেন আমির

কমিউনিটিনিউজ ডেস্ক: আমির খানের জনপ্রিয়তা নিয়ে নতুন করে বলার কিছু নেই। দুর্দান্ত অভিনয় এবং অসাধারণ ব্যক্তিত্ব দিয়ে সিনেমাপ্রেমীদের মধ্যে আকাশচুম্বী যাইগা করে নিয়েছেন। ১৯৮৮ সালে মনসুর খানের ‘কিয়ামত সে কিয়ামত তাক’ সিনেমা দিয়েই বলিউডে যাত্রা তার। সিনেমার দুর্দান্ত সাফল্য শুধু আমির নয় রাতারাতি তারকা বানিয়ে দিয়েছিল জুহি চালাকেও।

তবে অনেকেই জানেন না সিনেমাটি মুক্তির আগের আমির সম্পর্কে। কেমন ছিলো তার সেই সময়টা? আজকাল প্রায়ই দেখা যায় নতুন কেউ সিনেমায় প্রচুর প্রচারণা চলে। কেউ কেউ তাদের চলচ্চিত্রের প্রচারের জন্য বেঁছে নেন বিগ বাজেটের ইভেন্ট কিংবা জমকালো অনুষ্ঠান। কিন্তু আমির খানের সেই সময়টা ছিল পুরোপুরি ভিন্ন।

অটোরিকশায় পোস্টার লাগিয়ে তার প্রথম চলচ্চিত্র ‘কিয়ামত সে কিয়ামত তাক’র প্রচার করেছিলেন আমির নিজেই। সম্প্রতি নেট দুনিয়ায় ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে দেখা যায়, তরুণ আমির মুম্বাইয়ের রাস্তায় রাস্তায় অটোরিকশার পেছনে তার অভিষেক হওয়া সিনেমার পোস্টার মারছেন।

ভিডিওতে দেখা গেছে, কাঁধে পোস্টারের ব্যাগ ঝুলানো আমিরকে সাহায্য করছেন তার সহশিল্পী রাজেন্দ্রনাথ জুটশি। অচেনা আমিরকে কেউ চিনতেন না তখন৷ তাই মুম্বাইয়ের রাস্তাতেও ছিল না কোনো অটোগ্রাফ নেওয়ার চাপ। বরং এক অটো চালককে দেখা গেল পোস্টার মারাতে আপত্তি করছেন৷ বেচারা চালক, সে তো আর জানতো না রাস্তার এই নবাগতই একদিন বলিউড মাতিয়ে দেবেন৷ তাকে দেখার জন্য একদিন টিকিট কেটে লাইন পড়বে মানুষের!

প্রসঙ্গত, আমির খানকে সর্বশেষে ২০১৮ সালের ‘থাগস অফ হিন্দুস্তান’ ছবিতে দেখা গিয়েছে। গত বছর কারিনাকে নিয়ে ‘লাল সিং চাড্ডা’ সিনেমা দিয়ে বড় পর্দায় ফেরার কথা থাকলেও করোনা আটকে দেয় পরিকল্পনা। ছবিটি মুক্তি পাবে চলতি বছর। বর্তমানে করোনা আক্রান্ত আমির খান রয়েছে গৃহবন্দী। ঘরে বসেই নিচ্ছেন চিকিৎসা।

আমিরের সেই ভিডিও :

কমিউনিটি/এমএইচ

 

মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশে নিবন্ধন করলো ৯২৫৬ সুন্দরী

বাংলাদেশে দ্বিতীয়বারের মতো আয়োজিত হতে চলেছে মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ। করোনার সময়ে ২০২০ সালে মূল আয়োজনের কথা থাকলেও তা ২০২১ সালে নিয়ে আসা হয়েছে। নিবন্ধনের তারিখ ঘোষণার পর গত ৩৫ দিনে ৯ হাজার ২৫৬ জন তরুণী অংশ নেয়।

গতকাল শনিবার বিকেলে নিবন্ধন সংখ্যা নিশ্চিত করেছেন মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশের পরিচালক শফিকুল ইসলাম।

গত ১৩ জানুয়ারি থেকে ২৫ জানুয়ারি পর্যন্ত এবারের মিস ইউনিভার্স প্রতিযোগিতার নিবন্ধনের তারিখ ঘোষণা করে আয়োজকরা। পরে ০৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সময় বাড়ানো হয়।

শুরুর দিকে নিবন্ধন ফি ১০০০ টাকা ধরা হলেও করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে নিবন্ধন ফি তুলে নেয়া হয়। এতে করে নিবন্ধন ফি ছাড়াই আবেদন করে প্রতিযোগীরা। প্রথমে যারা পূর্বনির্ধারিত ফি দিয়ে নিবন্ধন করেছিলো তাদের ফি মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে ফেরত পাঠানো হয়েছে।

আয়োজকরা বলেন, পর্যায়ক্রমে অডিশনের মাধ্যমে বাছাই এবং গ্রুমিং শেষে মিস ইউনিভার্স বাংলাদেশ-২০২০-এর গ্র্যান্ড ফাইনাল অনুষ্ঠিত হবে চলতি বছরের মার্চ মাসে। বাংলাদেশ পর্বে বিজয়ীরা মে মাসে অংশ নেবেন যুক্তরাষ্ট্রে মিস ইউনিভার্সের মূল আয়োজনে।

 

কমিউনিটি/এমএইচ

আরও সংবাদ

শুটিংয়ের দোকানে চিপস কিনতে গিয়ে যা ঘটালো দুই শিশু!

কমিউনিটি নিউজ

কারাগার থেকে ছাড়া পেলেন শাহরুখ পুত্র আরিয়ান

কমিউনিটি নিউজ

এবার প্রকাশ্যে নুসরাতের বেবি বাম্প

কমিউনিটি নিউজ

বঙ্গবন্ধুর বায়োপিকের পারিশ্রমিক ১ টাকা!

কমিউনিটি নিউজ

দুই বছর আগেই হয়েছে মাহির বিচ্ছেদ

কমিউনিটি নিউজ

করোনায় আক্রান্ত হিনা খান

কমিউনিটি নিউজ