33 C
Dhaka
আগস্ট ১২, ২০২২

বিনা সুদে ঋণ পাচ্ছেন বইপ্রেমীরা

কমিউনিটিনিউজ ডেস্ক: বিনা সুদে বইপ্রেমীরা এই সুযোগ পাচ্ছেন। বই পড়ার অভ্যাসকে জনপ্রিয় করতে ২০২০ সালের একুশে বইমেলায় বাংলা একাডেমি প্রাঙ্গণে নিজস্ব স্টলের মাধ্যমে প্রথম কার্যক্রম শুরু করে ব্যতিক্রমধর্মী লোন সেবা চালু করেছে আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড।। ‘আইপিডিসি সুবোধ’ বাংলাদেশের প্রথম ও একমাত্র বই কেনার লোন সেবা।

নতুন বইয়ের ঘ্রাণে, সুবোধ জানুক প্রাণে’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখেই  এই ঋণের সুবিধা দিচ্ছে আইপিডিসি।

করোনা পরিস্থিতির কথা বিবেচনা করে দেশের জনপ্রিয় ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম রকমারি ডটকমের সঙ্গে ‌‌‌‘সুবোধ’ উদ্যোগটি চালু করেছে আইপিডিসি ফাইন্যান্স। ফলে গ্রাহকেরা ঘরে বসেই বই কিনতে পারবেন। এজন্য রকমারির ওয়েবসাইটের হোমপেজে আইপিডিসি সুবোধ মেন্যু রয়েছে। এখানে প্রবেশের করে গ্রাহকরা বই কেনার জন্য লোনের আবেদন করতে পারবেন। আবেদন মঞ্জুর হলে গ্রাহক এসএমএস পাবেন।

আরো পড়ুন:

আইপিডিসি সুবোধ থেকে একজন গ্রাহক এক হাজার ৫০০ থেকে তিন হাজার টাকা পর্যন্ত লোন নিতে পারবেন। লোন পেতে গ্রাহককে ১৮ বছর বা তার বেশি বয়সী বাংলাদেশী নাগরিক হতে হবে। লোনের জন্য আবেদনকারীর জাতীয় পরিচপত্রের ছবি, স্টুডেন্ট আইডি/পেশাগত পরিচয়পত্রের ছবি ও আবেদনকারীর ছবি জমা দিতে হবে। বিনা সুদে তিন কিস্তিতে এই লোন পরিশোধ করা যাবে। এ বছরের ১৪ এপ্রিল (বুধবার) পর্যন্ত এই সেবা পাওয়া যাবে।

আইপিডিসি ফাইন্যান্সেরর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মমিনুল ইসলাম বলেন, বইপ্রেমীদের বই পড়ার আনন্দকে আরও বাড়িয়ে দিতে আইপিডিসি সুবোধ উদ্যোগটি হাতে নিয়েছে। এর মাধ্যমে নতুন প্রজন্মের মধ্যে বই পাড়ার আগ্রহ আরও বাড়বে। আগামী দিনের বাংলাদেশের জন্য বুদ্ধিদীপ্ত নেতৃত্ব নিশ্চিত করতে হলে বই পড়ার অভ্যাস গড়ে তুলতেই হবে। আশা করি, আইপিডিসি সুবোধ যার যার আগ্রহের বিষয়ের বই পড়ার জন্য সব শ্রেণির পাঠককে সুযোগ করে দেবে।’

রকমারি ডটকমের স্বত্বাধিকারী প্রতিষ্ঠান অন্যরকম গ্রুপের চেয়ারম্যান মাহমুদুল হাসান সোহাগ বলেন, মনকে আলোকিত করার সবচেয়ে কার্যকর মাধ্যম হলো বই পড়া। এক আরও উৎসাহিত করতে আইপিডিসি সুবোধ কার্যকর ভূমিকা রাখবে। এভাবেই একদিন বইয়ে বইয়ে সয়লাব হবে ৫৬ হাজার বর্গমাইল।

কমিউনিটিনিউজ/ এমএএইচ

পাক যুবাদের বাংলাদেশ সফর স্থগিত

কমিউনিটিনিউজ ডেস্ক: আফগানিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিপক্ষে সিরিজ স্থগিত হওয়ার পর এবার পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজও স্থগিত হয়ে গেল।  করোনাভাইরাসে কারণে বেশ বিপাকেই পড়েছে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। একের পর এক স্থগিত হয়ে যাচ্ছে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। আবারো বাড়লো বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের অপেক্ষার পালা।

একমাত্র চারদিনের ম্যাচের সঙ্গে ৫টি ওয়ানডে ম্যাচের সূচি রয়েছে দুই দলের। এজন্য আগামী ১৭ এপ্রিল বাংলাদেশে আসার কথা ছিল পাকিস্তানি যুবাদের। তবে দেশে করোনাভাইরাসের উর্ধ্বগতি ঠেকাতে আগামী ১৪ এপ্রিল থেকে এক সপ্তাহের ‘সর্বাত্মক লকডাউন’ ঘোষণা করেছে সরকার। ফলে সে সময় বাংলাদেশে আসা হচ্ছে না পাকিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দলের। আপাতত স্থগিত করা হয়েছে সিরিজটি।বিষয়টি নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও।

আরো পড়ুন:

এই সিরিজ স্থগিতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। তারা এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানিয়েছে, বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের পরিস্থিতি উন্নতি না হওয়ার কারণে এবং লকডাউন ঘোষণা করার কারণে আপাতত দুই দলের মধ্যকার সিরিজ স্থগিত করা হচ্ছে।

বিসিবির গেম ডেভলপমেন্টের ম্যানেজার আবু এনাম মোহাম্মদ কায়সার গণমাধ্যমকে বলেন, ‘করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে যে বিধিনিষেধ আছে সে বিষয়টি বিবেচনায় আমরা এই মুহূর্তে সিরিজটি স্থগিত করছি। পরিস্থিতির উন্নতি সাপেক্ষে আমরা ঈদ উল ফিতরের পরে সুবিধাজনক সময়ে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে আলোচনা করে সিরিজটি আয়োজনের চেষ্টা করব।’

এমনিতেই নতুন অনূর্ধ্ব-১৯ দল গঠনের পর এখনো আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার সুযোগ হয়নি। করোনার কারণে একে একে স্থগিত হয়ে যাচ্ছে দ্বিপাক্ষিক সিরিজ। শুরুতে আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের পর এবার একই পরিণতি পাকিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দলের বিপক্ষে সিরিজও।

কমিউনিটিনিউজ/ এমএএইচ

আরও সংবাদ

বিশ্ববাজারে ফের কমলো গমের দাম

কমিউনিটি নিউজ

ঢাকায় ৩০ হাজার লিটার পাম ও সয়াবিন তেল উদ্ধার

কমিউনিটি নিউজ

এখানে কোনও সিন্ডিকেট নেই, দাবি মিলারদের

কমিউনিটি নিউজ

করোনার প্রণোদনার টাকা কোথায় গেল!

কমিউনিটি নিউজ

প্রবাসী ব্যবসায়ীদের বিনিয়োগের আহ্বান কৃষিমন্ত্রীর

কমিউনিটি নিউজ

পেঁয়াজের ঘাটতি দেখা দিলে নেদারল্যান্ডস থেকে আমদানি : কৃষিমন্ত্রী

কমিউনিটি নিউজ