30 C
Dhaka
আগস্ট ২০, ২০২২

রাজশাহীতে বাড়ছে রসুন চাষ

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী:  রাজশাহীতে বাড়ছে রসুন চাষ। এবছর জেলায় রসুন চাষের লক্ষ্যমাত্রা ছাড়িয়েছে। অনুকূল আবহাওয়া, অল্প পরিশ্রম আর কাঙ্খিত মূল্য পাওয়ায় এবারও রসুন চাষ করেছেন রাজশাহীর চাষিরা। সবমিলিয়ে এ বছর জেলায় ৬ হাজার ২৮৯ হেক্টর জমিতে রসুন চাষ হয়েছে।

এখন জেলার রসুন খেতগুলোয় পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন চাষিরা। সামনে ঘন কুয়াশার আশঙ্কা থাকলেও তথ্য সেবা নিয়ে কৃষকদের পাশে রয়েছে রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর।

জেলার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর বলছে, চলতি ২০২০-২১ মৌসুমে জেলায় ৪ হাজার ৯৫০ হেক্টর জমিতে রসুন চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। এ পর্যন্ত জেলায় রসুন চাষ হয়েছে ৬ হাজার ২৮৯ হেক্টর জমিতে। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১ হাজার ৩৩৯ হেক্টর বেশি জমিতে রসুন চাষ হয়েছে। গত বছর রাজশাহীতে ৪ হাজার ৯৩০ হেক্ট হেক্টর জমিতে রসুন চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছিল।

সংস্থাটি আরও জানায়, রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলায় ২ হাজার ৫৭০ হেক্টর জমিতে রসুন চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। বাঘায় ৮ শত ৫০ হেক্টর, চারঘাটে ৩শ ৫০ হেক্টর, পবায় ২০০ হেক্টর, তানোরে ২৫ হেক্টর, গোদাগাড়ীতে ১ শ ৫৫ হেক্টর, বাগমারায় ৩শ ৫০ হেক্টর, দূর্গাপুরে ২শ ৫০ হেক্টর, মোহনপুরে ১ শ ৮০ হেক্টর, মতিহারে ১৩ এবং ০৭ বোয়ালিয়ায় হেক্টর জমিতে রসুন চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে।

রাজশাহীর পুঠিয়া, বাগমারা, মোহনপুর এবং তানোরসহ বিভিন্ন মাঠ ঘুরে দেখা গেছে বিস্তীর্ণ রসুনের ক্ষেত। রাজপাড়া থানার সিলিন্দা এলাকার চাষি আ: সালাম জানান, গত বছর এক বিঘা জমিতে রসুন চাষ করেছিলেন। দামও পেয়েছিলেন আশানুরুপ। পরিবারের চাহিদা এবং ভালো দাম পাওয়ায় এ বছর দেড় বিঘা জমিতে রসুনের চাষ করেছেন।

মোহনপুর উপজেলার চাষি ময়েজ উদ্দিন জানান, রসুন চাষে পরিশ্রম ও খরচ অত্যন্ত কম আর দামও ভাল। এবার আবহাওয়াও বেশ অনুকূল। এ বছর দুই বিঘা জমিতে রসুনের চাষ করেছেন। এর আগে প্রতি বিঘা জমিতে পেয়েছেন ২৫ মণ করে রসুন। এবারও ফলন ও দাম ভাল পাবেন বলে তার আশা।

একই উপজেলার চাষি বাবুল হোসেন বলেন, রসুন চাষে পরিশ্রম কম হয়। সার কীটনাশক ব্যবহার অত্যন্ত কম হয়। সেই সঙ্গে পাওয়া যায় অধিক ফলন। একই ভাষ্য, গোদাগাড়ী কাকন হাট এলাকার চাষি মোমিনুল ইসলাম, বাগমারার আবুল কালাম, তানোরের গোলাম মোস্তফা, পবার সাজ্জাদ হোসেনও একই কথা জানান।

রাজশাহী জেলার কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক শামছুল হক জানান, চলতি মৌসুমে জেলায় ৪ হাজার ৯৫০ হেক্টর জমিতে রসুন চাষের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে। এ পর্যন্ত ৬ হাজার ২৮৯ হেক্টও জমিতে রসুন চাষ হয়েছে। যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১ হাজার ৩৩৯ হেক্টর বেশি জমিতে রসুন চাষ হয়েছে। তিনি আরও জানান, অন্যান্য ফসলের তুলনায় চাষিরা রসুনের দাম বেশি পেয়েছেন। তাছাড়া এখানকার আবহাওয়া রসুন চাষের উপযোগী। ফলে রসুন চাষে চাষিরা আগ্রহী হয়ে উঠছেন।

কমিউনিটি / এমবি

আরও সংবাদ

বিশ্ববাজারে কমেছে গম ও ভুট্টার দাম

কমিউনিটি নিউজ

জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রভাবে যশোরে কাঁচাবাজারে আগুন

কমিউনিটি নিউজ

কলার জমিতে কাটোয়া ডাটা চাষে স্বাবলম্বী নারীরা

কমিউনিটি নিউজ

ডিমের হালি ৪৪, ব্রয়লারের কেজিতে বাড়লো ১০ টাকা

কমিউনিটি নিউজ

৩ বছরের সর্বোচ্চে পৌঁছেছে ইইউ’র ভুট্টার আমদানি

কমিউনিটি নিউজ

গম ও ভুট্টা উৎপাদনে হাজার কোটি টাকা ঋণ পাবে কৃষক

কমিউনিটি নিউজ