33 C
Dhaka
মে ১৫, ২০২১

রাবি ‘দুর্নীতিবিরোধী’ শিক্ষকদের গুলি করার হুমকি ছাত্রলীগের

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

শিক্ষকদের গুলি করার হুমকি ছাত্রলীগের

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে সিন্ডিকেট সভা স্থগিত করার জন্য উপাচার্যের সঙ্গে কথা বলতে গেলে চাকরিপ্রত্যাশী ছাত্রলীগের সাবেক-বর্তমান নেতা–কর্মীরা ধাক্কা দিয়ে শিক্ষকদের সরিয়ে দিয়েছেন। আজ মঙ্গলবার সকালে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় ছাত্রলীগ নেতারা শিক্ষকদের উপর গুলি চালানোর হুমকি দেয়। এ নিয়ে উত্তেজনা সৃষ্টি হলে পরে সিন্ডিকেট সভা স্থগিত করে দেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

আরো পড়ুন: রাবিতে আবারে মর্টার শেল-রকেট লঞ্চারের গোলা উদ্ধার

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, আগামী ০৬ মে বর্তমান উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহানের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। এর দুইদিন আগে সিন্ডিকেট সভা ডাকে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। পছন্দের প্রার্থীদের নিয়োগ দেয়ার শেষ মহুর্তে এ সভা ডাকা হয় বলে ধারণা দুর্নীতিবিরোধী শিক্ষকদের। সে সময় ছাত্রলীগকে নিবৃত্ত করতে প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমানকে অনুরোধ করেন শিক্ষকেরা। এক পর্যায়ে পুলিশ ও প্রক্টরিয়াল বডির উপস্থিতিতেই শিক্ষকদের সঙ্গে ধাক্কাধাক্কিতে জড়িয়ে পড়েন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাধিক শিক্ষক ও প্রক্টর ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের দ্বারা লাঞ্ছিত হন বলে অভিযোগ উঠেছে।

আরো পড়ুন: তদন্ত স্থগিত রাখতে রাবি উপাচার্যকে লিগ্যাল নোটিশ

এ আশঙ্কায় সভা বন্ধের দাবিতে ভিসির বাসভবনের সামনে শিক্ষকরা সকাল থেকে অবস্থান নেন। তবে এর আগে উপাচার্যের বাসভবনের গেটে অবস্থান নেয় চাকরি প্রত্যাশী ছাত্রলীগের বর্তমান ও সাবেক নেতারা।

এ সময় আন্দোলকারী শিক্ষকরা উপাচার্যের বাসভবনে ঢুকতে চাইলে ছাত্রলীগের নেতারা তাদের বাঁধা দেয়। শিক্ষকরা জোরপূর্বক প্রবেশের চেষ্টা করলে ছাত্রলীগের নেতাদের সঙ্গে শিক্ষকদের ধাক্কাধাক্কি হয়। এসময় আকাশ নামে ছাত্রলীগের এক কর্মী শিক্ষকদের গুলি করে হত্যার হুমকি দেয়। পরে ক্যাম্পাসে সংবাদ সম্মেলন করে এ ঘটনার প্রতিবাদ জানান শিক্ষকরা।

আরো পড়ুন: পদত্যাগ করলেন রাবি রেজিস্ট্রার

আন্দোলনকারী শিক্ষকদের প্রতিনিধি ও বাংলা বিভাগের অধ্যাপক সফিকুন্নবী সামাদী বলেন, আমরা উপাচার্যের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গিয়েছিলাম। কিন্তু উপাচার্য ভাড়াটিয়া নিয়ে আসে আমাদের আন্দোলন বন্ধ করতে।

প্রক্টর অধ্যাপক লুৎফর রহমান বলেন, কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা যেন না ঘটে আমরা সেই চেষ্টাই করছি। তাছাড়া সিন্ডিকেটে নিয়োগ সংক্রান্ত কোনো বিষয় নাই। সভা ঘিরে উত্তেজনাকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হওয়ায় সিন্ডিকেট সভা স্থগিত করা হয়।

আরো পড়ুন: রাবি সিনেট ভবনে তালা, উপাচার্যকে অবরুদ্ধ

এদিকে, রাজশাহী বিশ^বিদ্যালয়ের উপাচার্য বাসভবনের সামনে ‘দুর্নীতিবিরোধী’ শিক্ষকদের গুলির হুমকি দেয়ার ঘটনায় প্রক্টর এবং নিয়ম অমান্য করে নিয়োগ দানের চেষ্টা করায় ‘দুর্নীতিবাজ’ উপাচার্যকে অপসারণ করে বিচারের আওতায় আনার দাবি জানিয়েছেন শিক্ষকরা। মঙ্গলবার দুপুরে বিশ^বিদ্যালয়ের আমচত্বরে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি জানান তাঁরা।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, ‘৩ মে রাতে উপাচার্যের জামাতার নেতৃত্বে বহিরাগত ক্যাডাররা সিনেট ভবনের তালা ভেঙ্গে সিন্ডিকেট সংক্রান্ত কাগজপত্র বের করে নিয়ে আসে। ১৫০ জনকে অবৈধভাবে নিয়োগ দানের উদ্দেশ্যে কাগজ প্রস্তুত করা হয় এবং রেজিস্ট্রারকে স্বাক্ষর প্রদানের জন্য চাপ প্রয়োগ করলে তিনি অস্বীকৃতি জানান। আমরা কারো নিয়োগের বিরোধী নই। কিন্তু প্রচলিত বিধি মোতাবেক স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় নিয়োগ সম্পন্ন করতে হবে।’

আরো পড়ুন:  উদ্ধারকৃত সেই গোলাবারুদ বিস্ফোরণ

লিখিত বক্তব্যে আরও বলা হয়, ‘দুর্নীতিবিরোধী শিক্ষকরা উপাচার্যের মেয়াদকালের শেষ সিন্ডিকেট শান্তিপূর্ণভাবে বন্ধ করার চেষ্টা করলে উপাচার্যের জামাতা ও প্রক্টরের নেতৃত্বে প্রতিহত করার চেষ্টা করে। এসময় বহিরাগত ক্যাডার বাহিনী শিক্ষকদের গুলি করার হুমকি দেয়।এক্ষেত্রে প্রক্টরের ভূমিকা ন্যাক্কারজনক। আমরা তার অপসারণ দাবি করছি। পাশাপাশি দুর্নীতিবাজ এই উপাচার্যকে আজকের মধ্যে অপসারণ করে বিচার প্রক্রিয়া শুরু করার আহ্বান জানাচ্ছি।’

লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন বাংলা বিভাগের অধ্যাপক সফিকুন্নবী সামাদী।

‘দুর্নীতিবিরোধী’ শিক্ষকদের একজন বাংলা বিভাগের শফিকুন্নবি সামাদী বলেন, ‘আমরা উপাচার্যের সঙ্গে দেখা করতে চেয়েছিলাম। কিন্তু, আমাদেরকে বাধা দেওয়া হয় এবং লাঞ্ছিত করা হয়। এমনকি, আমাদের গুলি করার হুমকি দেওয়া হয়।’ ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদেরকে এভাবে হুমকি দেওয়ার সাহস কারো থাকার কথা না। এটি আমাদের নিরাপত্তার বিষয়। এর জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য দায়ী,’ যোগ করেন তিনি।

 

রামেক হাসপাতালে করোনায় ৯ জনের মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী : রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে এক রাতে নয়জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে ছয়জনের করোনা পজেটিভ ছিল। বাকি তিনজন মারা গেছেন করোনা উপসর্গ নিয়ে। তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৪৯০ জনের । মঙ্গলবার (৪ মে ২০২১) রাতের বিভিন্ন সময় তাদের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস।

আরো পড়ুন : রাজশাহীতে করোনায় ৫জনের মৃত্যু

তিনি জানান, বর্তমানে করোনা ওয়ার্ডে ৯৭ জন ভর্তি রয়েছেন। এর মধ্যে ৪৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। বাকি ৫৪ জন করোনা উপসর্গ রয়েছে। তাদের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। করোনা আক্রান্তদের মধ্যে আইউসিইউতে ভর্তি রয়েছেন নয়জন।

আরো পড়ুন :  বিশ্বে ১৫ কোটি ছাড়ালো করোনা

এদিকে, রাজশাহী বিভাগের আট জেলার মধ্যে চার জেলায় করোনাভাইরাসে আরও সাতজনের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় তাদের মৃত্যু হয়। এর মধ্যে রাজশাহীতে একজন, চাঁপাইনবাবগঞ্জে দুইজন, বগুড়ায় তিনজন ও পাবনায় একজন। মঙ্গলবার দুপুরে রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালকের কার্যালয়ের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আরো পড়ুন : বেসরকারিভাবে করোনা পরীক্ষার মূল্য কমানোর পরামর্শ

প্রতিবেদনে বলা হয়, বিভাগের আট জেলায় এ পর্যন্ত ৪৯০ জনের মৃত্যু হলো করোনায়। এর মধ্যে সর্বোচ্চ ২৯৭ জনের মৃত্যু হয়েছে বগুড়ায়। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৭০ জন মারা গেছেন রাজশাহীতে।

আরো পড়ুন :  কাতারে করোনায় বাংলাদেশির মৃত্যু

এছাড়া চাঁপাইনবাবগঞ্জে ২০ জন, নওগাঁয় ৩৪ জন, নাটোরে ১৭ জন, জয়পুরহাটে ১১ জন, সিরাজগঞ্জে ২৩ জন এবং পাবনায় ১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। সোমবার বিভাগে নতুন ১০২ জন রোগী শনাক্ত হয়েছেন।

আরো পড়ুন : গ্রামাঞ্চলেও ছড়িয়ে পড়েছে করোনা

এ দিন বিভাগের ১৬০ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়েছেন। বিভাগে এ পর্যন্ত মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩২ হাজার ৬০ জন। এদের মধ্যে ২৮ হাজার ৪১৩ জন সুস্থ হয়েছেন। বিভাগে এ পর্যন্ত হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন তিন হাজার ৬২৬ জন কোভিড-১৯ রোগী। বাকিরা বাড়িতেই চিকিৎসা নিয়েছেন।

আরও সংবাদ

স্বপ্নের ঠিকানা পাচ্ছে চারঘাটের আরও ১০ পরিবার

কমিউনিটি

আড়াই’শ পরিবারের পাশে বাঘা উপজেলা চেয়ারম্যান লাভলু

কমিউনিটি

করোনায় জুয়ায় ঝুঁকে পড়ছে শিশুরা

কমিউনিটি

করোনায় রাজশাহী জেলা আ.লীগ সভাপতি মেরাজ মোল্লার ইন্তেকাল

কমিউনিটি

রডের বদলে রাস্তার গ্রিল, প্রকল্পের পাঁচ মেট্রিকটন লোহা গায়েব

কমিউনিটি

নওগাঁয় ইয়াবাসহ ছাত্রলীগ নেতা আটক

কমিউনিটি