30 C
Dhaka
আগস্ট ২০, ২০২২

প্রত্যায়ন নিয়ে চলতি মৌসুমেও ধান কাটতে যাচ্ছেন শ্রমিকরা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঘা (রাজশাহী): গত মৌসুমের ন্যায় রাজশাহীর বাঘা থেকে প্রত্যায়ন নিয়ে চলতি মৌসুমেও ধান কাটতে যাচ্ছেন শ্রমিকরা। চলতি সপ্তাহ থেকে শ্রমিকরা এলাকার বাইরে ধান কাটতে যাওয়া শুরু করেছেন। করোনা ভাইরাস জনিত কারণে সরকারের নির্দেশনা মেনে তাদের ধান কাটতে যেতে দেখা গেছে।

জানা গেছে, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা কৃষি অফিসারের কাছে থেকে গ্রুপ ভিত্তিক আবেদন করে প্রত্যয়নপত্র নিচ্ছেন তারা। গত মৌসিুমে গ্রুপ ভিত্তিক আবেদন করে উপজেলা থেকে প্রায় ১৫/২০ জনের একেকটি দল ধান কাটতে গিয়েছিল প্রায় ২০ হাজার শ্রমিক।

উপজেলা কৃষি অফিসের তথ্য মতে জানা যায়, তিন হাজার শ্রমিক ইতিমধ্যে আবেদন করেছেন। গেছেন প্রায় এক হাজারের মতো। এসব শ্রমিকরা ধান কাটতে যাচ্ছেন নাটোর, নওগাঁ, জয়পুরহাট, পাবনা, সিরাজগঞ্জ, বগুড়া জেলার বিভিন্ন উপজেলায়।

এ বিষয়ে ছাতারি গ্রামের শ্রমিক দলনেতা হাফিজুল ইসলাম জানান, এসময় এলাকায় তেমন কোন কাজ থাকেনা। প্রায় দুই মাস বেকার অবস্থায় থাকতে হয়। তাই সংসার চালাতে গিয়ে অনেকে ঋণগ্রস্থ হয়ে পড়ে। তাই ধান কাটার এই মৌসুমে খাদ্য সংগ্রহের জন্য এলাকার বাইরে যেতে হয়। তবে একেক জন শ্রমিক ২০-২৫ মণ ধান নিয়ে বাড়ি ফিরেন। এই ধান খাদ্যের অভাব দুর করে এবং দেনা পাওনা শোধ করতে সাহায্য করে। গত মৌসুমে যানবাহন চলাচলে বিধি নিষেধ থাকায় চুক্তিভিত্তিক গাড়ি ভাড়া করে গিয়েছিলাম। আবার অনেকে বাইসাইকেল ও ভ্যান নিয়ে গিয়েছিল।

আরো পড়ুন:

গাছে বেঁধে কিশোর নির্যাতন, অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য গ্রেপ্তার

শীতার্তদের পাশে রাজশাহী কলেজ ‘বুনোদল’

অবহেলায় শহীদ শিবলী সরণির নামফলক

আড়ানি পৌর ছাত্রদলের যুগ্ন আহ্বায়কসহ ১০ জনের পদত্যাগ

উপজেলা কৃষি অফিসার শফিউল্লাহ সুলতান বলেন, ধান উৎপাদিত এলাকায় প্রতিবছর এ সময় শ্রমিক সংকট দেখা দেয়। এর প্রেক্ষিতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নির্দেশক্রমে করোনা ভাইরাসের মধ্যে প্রত্যায়নপত্র দিয়ে শ্রমিক পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। সেই ক্ষেত্রে উপজেলার নির্বাহী অফিসার ও আমার যৌথ স্বাক্ষরে প্রত্যয়নপত্র (অনুমতি) দেওয়া হচ্ছে। তবে এরমধ্যে কেউ যদি করোনা আক্রান্ত এলাকা থেকে নিজ এলাকায় ফিরে আসে, তাদের নমুনা পরীক্ষা করে এলাকাতে ঢুকতে দেওয়া হবে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার পাপিয়া সুলতানা বলেন, যেহেতু শ্রমিকরা এক দলে কাজ করবে। সেজন্য নিজেদের সাবধনতা অবলম্বন করে দুরত্ব বজায় রেখে কাজ করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি বেশি বেশি পানি পান ও ঘনঘন সাবান দিয়ে হাত ধৌত করার জন্য পরামর্শ দিয়ে প্রত্যায়ন পত্র দেয়া হচ্ছে।

কমিউনিটি/ এমএএইচ

আড়ানি পৌর ছাত্রদলের যুগ্ন আহ্বায়কসহ ১০ জনের পদত্যাগ

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঘা (রাজশাহী): রাজশাহী বাঘায় আড়ানি পৌর ছাত্রদলের নবগঠিত আহ্বায়ক কমিটি থেকে সদস্য সচিব ও যুগ্ন আহ্বায়কসহ ১০ জন পদত্যাগ করেছে। গত ১২ এপ্রিল আড়ানি পৌর ছাত্রদলের পদত্যাগ পত্রটি ডাকযোগে জেলার দায়িত্বশীল নেতাদের কাছে পাঠানো হয়েছে বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন পৌর ছাত্রদলের সদস্য সচিব মৃদুল হাসান।

গত ১এপ্রিল জেলা ছাত্রদলের সভাপতি রেজাউল করিম টুটুল ও সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম জনি স্বাক্ষরিত আড়ানি পৌরছাত্র দলের আহ্বায়ক কমিটি অনুমোদন দেয়।

আড়ানি পৌর ছাত্রদলের সদস্য সচিব মৃদুল হাসান বলেন, যারা আড়ানি পৌর সভার বিগত নির্বাচনে (১৬ জানুয়ারি‘২০২১) নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছেন, এমন অনেককেই কমিটির গুরুত্বপূর্ণ পদে রাখা হয়েছে। কমিটি গঠনের ক্ষেত্রেও সিনিয়রদের অসম্মান করা হয়েছে।

জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্বজনপ্রীতি ও স্বেচ্ছাচারিতার অভিযোগ করে বলেন, আড়ানী পৌরসভার সাবেক সভাপতি ও পৌরসভার সাবেক মেয়র নজরুল ইসলামসহ তার সমর্থিত বিএনপি, ছাত্রদলের নেতা-কর্মী, নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর পক্ষে নির্বাচন করেছেন। যারা সর্বক্ষনিক ছাত্রলীগের সাথে চলাফেরা করেন। তাদের ছাত্রদলের কমিটিতে আহবায়ক ,যুগ্ম আহবাহয়ক ও সদস্য করা হয়েছে। তাদের সাথে আমাদের কাজ করা সম্ভব না হওয়ায় নবগঠিত আহ্বায়ক কমিটি থেকে সদস্য সচিব ও যুগ্ন আহ্বায়কসহ ১০ জন পদত্যাগ করেছি।

আরো পড়ুন:

চারঘাটে শর্ট সার্কিটের আগুনে গরুসহ ৩টি বাড়ি পুড়ে ছাই

গাছে বেঁধে কিশোর নির্যাতন, অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্য গ্রেপ্তার

শীতার্তদের পাশে রাজশাহী কলেজ ‘বুনোদল’

অবহেলায় শহীদ শিবলী সরণির নামফলক

তারা হলেন, সদস্য সচিব মৃদুল হাসান, যুগ্ম আহ্বায়ক -২ রিফাতউল হাসান, যুগ্ম আহ্বায়ক -৫ মিলন হোসেন, যুগ্ম আহ্বায়ক -৮ আমিন উদ্দিন, আহ্বায়ক -৯ আব্দুল মমিন, আহ্বায়ক -১১ মেহেদী হাসান, সদস্য ১৩ আলমগীর কবির ইসলাম ,সদস্য ১৮ রায়হান , সদস্য ১৯ শাকিল আহম্মেদ , সদস্য ২১ ফায়সাল আহম্মেদ ।

ছাত্রদলের নবগঠিত কমিটির সদস্য সচিব মৃদুল হাসান জানান, আড়ানি পৌর ছাত্রদলের দলীয় প্যাডে তারা নিজ নিজ পদ উল্লেখ পূর্বক নিজেদের নাম স্বাক্ষর করে (১২ এপ্রিল ২০২১) ডাকযোগে রেজিষ্টারি করে জেলা কমিটির কাছে প্রেরণ করেছি। যার অনুলিপি কপিও সংশ্লিষ্টদের নিকট প্রেরণ করা হয়েছে। এর আগে পদত্যাগ পত্রটি জেলা কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক গ্রহন করেননি। পরে রেজিষ্টারি করে ডাকযোগে পাঠানো হয়েছে।

জেলা ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক শরিফুল ইসলাম জনি জানান, পদত্যাগের কোন প্রকার কাগজপত্র পায়নি। তবে পাওয়ার পরে বলতে পারবেন বলে জানান তিনি।

কমিউনিটি/ এমএএইচ

আরও সংবাদ

রাজশাহীতে গাঁজাসহ যুবক আটক

কমিউনিটি নিউজ

রাজশাহী কলেজে চালু হলো মেধাবৃত্তি

কমিউনিটি নিউজ

পুলিশের ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে নিজের মোটরসাইকেলে আগুন দিলেন যুবক

কমিউনিটি নিউজ

২০ টাকার নাপা সিরাপ ৩৫ টাকায় বিক্রি, জরিমানা

কমিউনিটি নিউজ

আমের দামে খুশি রাজশাহীর চাষিরা

কমিউনিটি নিউজ

রামেক হাসপাতালে ভর্তি সাবেক খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম

কমিউনিটি নিউজ