33 C
Dhaka
আগস্ট ১২, ২০২২

করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু

করোনাভাইরাস

নিজস্ব প্রতিবেদক: করোনায় একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু দেখলো বাংলাদেশ। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে নতুন করে মারা গেছেন ৭৪ জন। শনাক্ত হয়েছেন ৬ হাজার ৮৫৪ জন। দেশে এ মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৬৬ হাজার ১৩২ জনে। এছাড়াও মোট মৃত্যু হয়েছে ৯ হাজার ৫২১ জন। বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদফতর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় করোনামুক্ত হয়েছেন ৩ হাজার ৩৯১ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ৫ লাখ ৬৫ হাজার ৩০ জন।

আরো পড়ুন:

এ সময়ে ৩৩ হাজার ৩২৮ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। পরীক্ষা করা হয়েছে ৩৩ হাজার ১৯৩টি নমুনা। মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৪৯ লাখ ১৫ হাজার ৭৫৮টি। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ২০ দশমিক ৬৫ শতাংশ। মোট পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৫৫ শতাংশ।

জেনে নেয়া যাক কোন জেলায় কতজন সুস্থ ও মৃত্যু হয়েছে।

  • ঢাকা : সুস্থ ২২৭২ জন, মৃত্যু ৪৩ জন
  • চট্টগ্রাম: সুস্থ ৯৩২ জন, মৃত্যু ১৫ জন
  • বরিশাল: সুস্থ ৩৫ জন, মৃত্যু ৪ জন
  • খুলনা : সুস্থ ১৯ জন, মৃত্যু ৭ জন
  • রাজশাহী: সুস্থ ৩২ জন, মৃত্যু ৩ জন
  • সিলেট: সুস্থ ৭৪ জন, মৃত্যু ২ জন
  • রংপুর: সুস্থ ২৬ জন, মৃত্যু ০
  • ময়মনসিংহ: সুস্থ ১ জন, মৃত্যু ০

গত ২৪ ঘণ্টায় মারা যাওয়া ৭৪ জনের মধ্যে ৪৮ জন পুরুষ, বাকি ২৬ জন নারী। এর মধ্যে হাসপাতালে মারা গেছেন ৭০ জন বাকি ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে বাড়িতে। মোট মারা যাওয়া ৯ হাজার ৫২১ জনের মধ্যে পুরুষ ৭ হাজার ১৩০ জন, নারী ২ হাজার ৩৯১ জন।

বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, মারা যাওয়া ৭৪ জনের মধ্যে ষাটোর্ধ্ব ৪৬ জন, ৫১ থেকে ৬০ বছরের ১৬, ৪১ থেকে ৫০ বছরের ৬, ৩১ থেকে ৪০ বছরের ৫ এবং ২১ থেকে ৩০ বছরের একজন রয়েছেন।

কমিউনিটিনিউজ/ এমএএইচ

শপিংমল খোলার ঘোষণা

কমিউনিটিনিউজ ডেস্ক: ৭ দিনের বিধিনিষেধের মধ্যেই গণপরিবহন খুলে দেয়া হলো । আবার খুলে দেওয়া হচ্ছে শপিংমল। তবে সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত দোকানপাট ও শপিংমল খোলা থাকবে। তবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সবাইকে বেচাকেনা করতে হবে বলে সরকারের তরফ থেকে নির্দেশনা  দিয়েছে।

শুক্রবার (০৯ এপ্রিল ২০২১) থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে। প্রাথমিকভাবে ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত এ সময়সীমা মেনে শপিংমল ও দোকানপাট খোলা যাবে। বৃহস্পতিবার (০৮ এপ্রিল ২০২১) মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব রেজাউল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

আরো পড়ুন:

চিঠিতে বলা হয়, আগামী ৯ থেকে ১৩ এপ্রিল মেয়াদে সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত কঠোর স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন সাপেক্ষে দোকানপাট ও শপিংমল খোলা রাখা যাবে। তবে স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন না করা হলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও চিঠিতে সতর্ক করা হয়।

এর আগে ৫ এপ্রিল থেকে সারাদেশে এক সপ্তাহের জন্য কঠোর নিষেধাজ্ঞা জারি করে সরকার। এতে গণপরিবহন, শপিংমল, দোকানপাট, বিনোদনকেন্দ্রগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়। কিন্তু নিষেধাজ্ঞার তৃতীয় দিনে শর্ত সাপেক্ষে ঢাকাসহ দেশের সব সিটি করপোরেশন এলাকায় গণপরিবহন সেবা চালু করে দেয় সরকার।

কমিউনিটিনিউজ / এমএএইচ

আরও সংবাদ

দেশে কতদিনের জ্বালানি আছে তা জানালো বিপিসি

কমিউনিটি নিউজ

যশোর অঞ্চলে টেকসই কৃষি সম্প্রসারণ প্রকল্প চালু হবে ২০২৭ সালে

কমিউনিটি নিউজ

বিশ্ববাজারে কমেছে গম ও ভুট্টার দাম

কমিউনিটি নিউজ

জ্বালানি তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রভাবে যশোরে কাঁচাবাজারে আগুন

কমিউনিটি নিউজ

সুইস ব্যাংকের কাছে নির্দিষ্ট কোনও তথ্য চায়নি বাংলাদেশ: রাষ্ট্রদূত

কমিউনিটি নিউজ

শ্রীলঙ্কায় এক ধাক্কায় বিদ্যুতের দাম বাড়লো ৭৫ শতাংশ

কমিউনিটি নিউজ